Home Videos Photos News & media Blogs Contact    
News and Articals

বগুড়ায় জঙ্গি ‘আশ্রয়দাতা’ আওয়ামী লীগ নেতা গ্রেপ্তার

Edit Date:11/12/2013 12:00:00 AM

 
স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া থেকে: বগুড়ায় জঙ্গি আস্তানা ভাড়া দেয়া আওয়ামী লীগ নেতা দুলাল হোসেন গ্রেপ্তার হয়েছেন। হঠাৎ কোটিপতি বনে যাওয়া আওয়ামী লীগ নেতা দুলালকে নিয়ে অনেক কথাই হচ্ছে। বৃহস্পতিবার ১২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক দুলাল হোসেনের বাড়ি থেকে অত্যাধুনিক ভারি অস্ত্রসহ ৩ জঙ্গি র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার পর দুলাল গাঢাকা দিয়েছিলেন। রোববার গভীর রাতে তার এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে তাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারের পর দুলাল নিজেও আওয়ামী লীগ নেতা হিসেবে দাবি করেছেন বলে পুলিশের একটি সূত্র জানায়। দুলালের স্ত্রী নাদিরা বেগম ও কয়েক জন আওয়ামী লীগ নেতা নিশ্চিত করেন দুলাল আওয়ামী লীগের একজন সক্রিয় নেতা।
এদিকে বগুড়ার রহস্যময় ‘দেওয়ান বাড়ি’ থেকে ভারি অস্ত্রসহ ৩ জঙ্গি গ্রেপ্তার হয়েছে। ওই বাড়িকে ঘিরে এলাকায় নানা মানুষের মুখে নানা কথা শুরু হয়েছে। ঠনঠনিয়া এলাকার ওই বাড়িতে আগেও অবৈধ জিনিসের কারবার হয়েছিল। ঘটনাগুলো এলাকাবাসীর মুখে মুখে।
প্রতিবেশী নুরুল ইসলাম জানান, দুলাল হোসেনের ‘দেওয়ান বাড়ি’ থেকে আগেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অবৈধ ভিওপি’র সরঞ্জামাদি উদ্ধার করেছিল। ওই বাসার এক ভাড়াটিয়া নিজেদের মধ্যে বিরোধের সূত্র ধরে অবৈধ ফেনসিডিল ব্যবসার কথা ফাঁস করে দিলে ভাড়াটিয়ারা অন্যত্র চলে যায়। বারবার একই বাড়িতে এ ধরনের ঘটনার পরেও বাড়ির মালিক বাড়ি ভাড়া দিতে খোঁজখবর কেন নেয়নি- এটা একটা রহস্য। অথচ, ওই বাড়ি থেকেই আবারও তিন জঙ্গিসহ অত্যাধুনিক ভারি অস্ত্র উদ্ধার হলো।
আরেক প্রতিবেশী জানান, রহস্যময় ওই বাড়িতে কোন ভাড়াটিয়া এলেই প্রতিবেশীদের মনে নানা কৌতূহল জাগে। এমনকি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছেও। সেই সূত্র ধরেই হয়তো বা খোঁজ করতে এসে বড় ধরনের জঙ্গি আস্তানা আবিষ্কার সহ অত্যাধুনিক ভারি অস্ত্র উদ্ধার করেছে।
দুলাল বগুড়া শহরে এসে আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে সখ্য গড়ে তোলেন। সেই সুবাদেই জয়পুরহাটের আক্কেলপুর থেকে আসা দুলাল হঠাৎ করেই রহস্যজনক ভাবে কোটিপতি হয়ে পড়েন। জঙ্গিরা তার ভাড়া দেয়া বাসা থেকে গ্রেপ্তারের আগে সেখানে কয়েকদিন মোটরসাইকেল যোগে কিছু যুবক এসেছিল। তারা কারা পুলিশ সে ব্যাপারে খোঁজ নিচ্ছে।
Terms & Conditions © Copy right by Awami Brutality 2010